রবিবার, ০১ আগষ্ট ২০২১ , ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮

প্রকাশ কাল :২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ , ১০:৪১ PM

ইরফান সেলিমঃ রাজনৈতিক ক্যারিয়ার নষ্ট করতে অসৎ উদ্দেশ্যে কে বা কারা রেখে যায়

single image

ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৩০ নম্বর ওয়ার্ড (বরখাস্ত) কাউন্সিলর ইরফান সেলিমের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদনে (চার্জশিট) পুলিশ বলেছিল, তার বাসা থেকে যে পিস্তলটি উদ্ধার করা হয়েছিল, সেটি ইরফান সেলিমের রাজনৈতিক ক্যারিয়ার নষ্ট করতে অসৎ উদ্দেশ্যে কে বা কারা রেখে যায়।

অর্থাৎ সেটি তার অস্ত্র ছিল না। এবার তার বিরুদ্ধে মাদক মামলার চার্জশিটেও পুলিশ বলেছে, ইরফান সেলিমের রাজনৈতিক ক্যারিয়ার নষ্ট করতে অসৎ উদ্দেশ্যে কে বা কারা বিদেশি মদ ও বিয়ার তার বাসায় রেখে যায়। অর্থাৎ এ মদ ও বিয়ার তার নয়।

গত ৫ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর হাকিম আশেক ইমামের আদালতে মাদক মামলায় ইরফান সেলিমকে অব্যাহতির সুপারিশ করে দেয়া চূড়ান্ত প্রতিবেদনে (চার্জশিট) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চকবাজার থানার পরিদর্শক মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন এ কথা উল্লেখ করেছেন। প্রতিবেদনটি গ্রহণের বিষয়ে শুনানির জন্য ২৮ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য রয়েছে।

এর আগে একইদিন (৫ জানুয়ারি) ইরফান সেলিমকে অব্যাহতির সুপারিশ করে অস্ত্র মামলায় চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন পরিদর্শক মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি প্রতিবেদনটি গ্রহণ করে ওই মামলা থেকে ইরফান সেলিমকে অব্যাহতি দেন আদালত।


অস্ত্র মামলার ওই প্রতিবেদনে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, ‘ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৩০ নম্বর ওয়ার্ড (বরখাস্ত) কাউন্সিলর ইরফান সেলিমের রাজনৈতিক ক্যারিয়ার নষ্ট করতে অসৎ উদ্দেশ্যে কে বা কারা উদ্ধার করা পিস্তলটি তার বাসায় রেখে যায়। এলাকায় ইরফান সেলিমের বিরুদ্ধে অবৈধ অস্ত্র বহন বা প্রদর্শন তথা সন্ত্রাসী কার্যকলাপে অংশগ্রহণের কোনো সাক্ষ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়নি।’

মাদক মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদনে তদন্ত কর্মকর্তা উল্লেখ করেছেন, ‘ইরফান সেলিমের বিরুদ্ধে করা মাদক মামলার ঘটনাস্থল ২৬ নং চাঁন সর্দার দাদাবাড়ি। এই বাসার মালিক বর্তমান ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম। মামলার আসামি ইরফান সেলিম তার পুত্র। ইরফান সেলিম বর্তমানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর (পরে বরখাস্ত করা হয়)। মামলার বাদী এজাহার ও জব্দ তালিকায় ঘটনাস্থল ইরফান সেলিমের ব্যক্তিগত শয়নকক্ষ উল্লেখ করেন। তবে মামলাটি সরেজমিনে তদন্তকালে সাক্ষ্য-প্রমাণে দেখা যায় যে, মামলার ঘটনাস্থলটি ইরফান সেলিমের ব্যক্তিগত শয়নকক্ষ নয়। সেটি ছিল একটি অতিথিকক্ষ।’

এই বিভাগের আরো খবর ::

নামাজের সময়সূচী

তারিখ ০১ আগষ্ট ২০২১

  • ফজর

    ৪ঃ২৭

  • যোহর

    ০০ঃ০১

  • আছর

    ৪ঃ২৭

  • মাগরিব

    ০৬ : ১৪

  • এশা

    ৭ঃ৩০

  • সূর্যোদয় : ৫ঃ৪৩
  • সূর্যাস্ত : ০৬ : ০০
Image
Ads